বেকিং সোডা : বেকিং সোডার গুণাগুণ

বেকিং সোডা। baking soda
বেকিং সোডা কেবল মজাদার খাবার তৈরি করতে নয়, সৌন্দর্য এবং পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার জন্যও ব্যবহার করা যেতে পারে।

বেকিং সোডা! রান্না ঘরে হরহামেশা প্রয়োজনীয় উপকরন বলা চলে! কেক, পিঠা, মজাদার নাস্তায় বেকিং সোডার ব্যবহার রাধুনীদের বেশ পরিচিত! এই বেকিং সোডা যদি হয়ে উঠে আপনার ঘরের যাবতীয় সকল কাজের জাদুকরী চেরাগ, তবে কি আর অবাক না হয়ে থাকা যায়?!  আবার, কথাই আছে যে রাধে, সে চুল ও বাঁধতে জানে। সংসার সামলানোতে বাড়তি পরিশ্রম তো থাকছেই! ,সাথে হালকা রুপচর্চায় আরাম আয়েশে একটু স্বাচ্ছন্দ্যে বিশ্রাম নেওয়াটা ও তো জরুরি, তাইনা? হ্যাঁ, ঠিকই ধরেছেন। রুপচর্চা থেকে রান্নাঘর পর্যন্ত সকল ঘরোয়া টিপস থাকবে এই বেকিং সোডাকে ঘিরে।  চলুন তবে দেরী না করে  আজকের ম্যাজিকালী টিপসের অন্যরকম গল্পে মেতে উঠা যাক!

গৃহস্থলীর কাজে বেকিং সোডা :

১. মেঝে পরিষ্কারক হিসেবেঃ. রান্নাঘরের মেঝে কেমন যেন ময়লা ও স্যাঁতসেতে হয়ে আছে! প্রতিদিনে মেঝে মোছা হলেও স্যাঁতস্যাতে ভাব থেকেই যায়। অল্প একটু বেকিং সোডা রান্নাঘরে ছিটিয়ে স্পঞ্জ দিয়ে ভালমত মুছে নিন। কি?! ঝকঝকে মেঝে পেয়ে গেলেন তো সহজেই!

২.ফ্রিজের দুর্গন্ধ রোধেঃ ফ্রিজে মাছ ও শাকসবজির জড়ো হওয়ায় একটু তো গন্ধ নাকে পড়ছেই। দীর্ঘদিন এ ফ্রিজের এই দুর্গন্ধ আর নিতে পারছেন না? আজই এই সমস্যার পরিত্রান সম্ভব। ছির্দ্রযুক্ত একটি জারে ১/২ কাপ বেকিং সোডা, ৩ফোঁটা লেমন এসেনশিয়াল ওয়েল, ৩ ফোঁটা অরেন্জ এসেনশিয়াল ওয়েল নিয়ে ফ্রিজে জারটি রেখে দিন। এখন, সুগন্ধের মোহ্ ছড়িয়ে পড়েছে ফ্রিজে, তাইনা?

৩.তৈলাক্ত থালা-বাসন পরিষ্কারেঃ  তৈলাক্ত প্লেট, বাসন ও  সসপ্যান আর হাতের জোরে পরিষ্কার হচ্ছেনা। এত ঘষাঘষি তারপরও পরিষ্কারে ব্যর্থ! আর নয় ঝামেলা! বেকিং সোডার পানিতে তৈলাক্ত প্লেট, বাসন সমুহ ১৫-২০ মিনিট ডুবিয়ে রাখুন। ঝকঝকে থালা বাসন এখন পাবেন অতিসহজে।

৪. কার্পেট ক্লিনারঃ  বাড়ির মেঝেতে কার্পেট প্রায় আমাদের সকলেরই আছে। কার্পেট পরিষ্কারক হিসেবে কেমিক্যাল ব্যবহারে শিশুর শরীরে ক্ষতিকর প্রভাব তো পড়বে। প্রাকৃতিক কার্পট ক্লিনার হিসেবে বেকিং সোডা ছিটিয়ে নিন। ২০ মিনিট পর ভ্যাকুয়াম ক্লিনার দিয়ে পরিষ্কার করে নিন।

৫.জানালার কোনে জমে থাকা ধুলোবালিঃ জানলার কোনে জমে থাকছে ধুলাবালি! একদমই নাগালে পাওয়া যায়না বলে কোনার জমা ময়লা গুলো সাফ করতে আমাদের হরহামেশা আলসেমি লাগেই।

অতি সহজে পরিষ্কার করতে ১ চামচ বেকিং সোডা কোনায় ছিটিয়ে দিন। এরপর সাদা ভিনেগার দিন। আনুমানিক ২০মিনিট পর ব্রাাশ দিয়ে ময়লা গুলো ঘষে ঘষে পরিস্কার করে তুলে ফেলুন।

৬. কাপড় ধোঁয়াঃ প্রাকৃতিক ডিটারজেন্ট ক্লিনজার হিসেবে বেকিং সোডার কার্যকারিতা অনেক। ১কাপ সোডা পানিতে মিক্স করে কাপড় ভিজিয়ে রাখুন। পরে ধুয়ে নিন এক নিমিষেই!

রুপচর্চায় বেকিং সোডার ব্যবহার

হলদে দাঁত পরিষ্কারেঃ দাঁতের হলদে ভাব নিয়ে প্রায়ই লজ্জার মুখে পড়তে হয় অনেকের। ব্রাশ করেও ঝকঝকে দাঁত পাওয়া অসম্ভব লাগছে। সপ্তাহে ২বার দিন  টুথপেষ্ট এর সাথে বেকিং সোডা যুক্ত করে দাঁত ব্রাশ করুন। ফলাফল নিজেই দেখতে পাবেন।

আন্ডারআর্মের দুর্গন্ধ রোধেঃ আন্ডারআর্মের দুর্গন্ধ দুর করতে প্রাকৃতিক সুগন্ধি হিসেবে বেকিং সোডার জাদুকরী  ব্যবহার রয়েছেই। ১ চামচ বেকিং সোডার সাথে পরিমানমত পানি মিক্স করে পেস্টটি আপনার আন্ডারআর্মে লাগিয়ে নিন।

মাথায় খুশকিঃ  মাথায় খুশকির ঝামেলা এখন বেশ দুশ্চিন্তার কারন। শ্যাম্পু করার সময় ১চা চামন বেকিল সোডা শ্যাম্পুর সাথে মিশিয়ে নিন। এবার, মাথার ত্বকে হালকা ম্যাসাজ করুন। তাহলে খুব সহজেই খুশকির সমস্যার সমাধান পেয়ে যাবেন।

আরও পড়তে পারেন : চুলের খুশকি সমস্যার প্রাকৃতিক উপায়গুলি

ত্বকে ব্রনের সমস্যাঃ ব্রণের সমস্যা চিরতরেই লেগে থাকে। এই ব্রন এর সমস্যা ঠেকাতে বেকিং সোডার পেস্ট লাগিয়ে রাতে ঘুমোতে যান। ব্রনের সমস্যা নিমিষেই দুর হয়ে যাবে।

কনুইয়ের কালচে দাগঃ কনুই বা গোড়ালির কালো দাগ দুর করতে ৩ ভাগ বেকিং সোডা ও ১ভাগ পানির সাহায্যে পেস্ট বানিয়ে কালো ছোপের অংশে লাগিয়ে নিন। পরে ধুয়ে নিন।

ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিঃ কোমল ও মলিন ত্বকের পাশাপাশি ত্বকের আসল সৌন্দর্য ধরে রাখতে সবাই চায়। এরজন্য বেকিং সোডার সাহায্য নিতে পারেন। এইক্ষেত্রে ১চা চামচ বেকিং সোডার সাথে, ১চামচ মধু মিক্স করে ত্বকে ২মিনিট আলতো করে ঘষুন। এবার, মুখ ধুয়ে ফেলুন।

এছাড়া, কাটা থান, পোকামাকড় কামড়ালে আক্রান্ত স্থানে বেকিং সোডার গুণাগুণ কাজে দেয়। এমনই প্রাত্যহিক জীবনের কাজসমুহের সহজীকরনের সঙ্গী বেকিং সোডা! বাসায় বাজারের লিস্টে বেকিং সোডা হোক ১ম সারিতে!

প্রিয় পাঠক, আপনাদের জন্যই ভাল কিছু লেখার চেষ্টা করি। নিয়মিত লেখা আপনাদের মাঝে পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা থাকবে অবিরাম। আমার লেখা ভাল লেগে থাকলে নতুন লেখা সমুহের আপডেট পেতে অবশ্যই আমার বাংলা পোস্ট এর সাথে থাকুন। সেই পর্যন্ত সুস্থ থাকবেন এবং দোয়া রাখবেন। আসসালামু আলাইকুম,  আল্লাহ হাফেজ।

সময় হলে আমার অন্য লেখাগুলি পড়তে পারেন…

baking soda! An essential ingredient used in the kitchen. Baking soda can be used not only to make fun food, but also for beauty and cleanliness.

For more update please follow our Facebook, Twitter, Instagram , Linkedin , Pinterest , Tumblr And Youtube channel.

Leave a Comment

error: Content is protected !!