চট্রগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মজাদার মেজবানি মাংসের রেসিপি

চট্রগ্রামের মানুষ আর মেজবানী মাংসের স্বাদে লোভ নেই? এটা অসম্ভব!

মেজবানি মাংসের স্বাদ এখন আর শুধু চট্টগ্রামেই সীমাবদ্ধ নয় বরং বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলেও এর সুনাম পরিলক্ষিত!  “মেজবান“, “মেজ্জান হাইতু আইয়্যুন” এরকম নামের রেস্টুরেন্ট অনেক জনপ্রিয়তা পেয়েছে ইতিমধ্যে।

ঘরে বসে মেজবানি মাংসের ঐতিহ্যবাহী লোভনীয় স্বাদটি পেতে চান? মুলত, মেজবানি মাংসের অন্যতম বৈশিস্ট্য হলো ঝাল এবং মশলার আধিক্যতা। আর, সরিষার তেল ছাড়া আসল স্বাদ চিন্তা করা বোকামি।

খুব কঠিন ও ঝামেলা মনে হয় বলে অনেকে মেজবানি মাংস রান্না করতে অনীহা প্রকাশ করেন, আবার অনেকে আসল স্বাদ পাবেন কিনা চিন্তায় পড়ে যান। তাই, সবথেকে সহজ রেসিপিটি নিয়ে এলাম শুধুমাত্র আপনাদের জন্য! একনজরে দেখে নিন চট্রগ্রামের ঐতিহ্যবাহী মেজবানি মাংসের রেসিপিটি!

মেজবানি মাংসের রেসিপির উপকরণঃ

  • গরুর মাংস- ১কেজি
  • সরিষার তেল- ১০০গ্রাম
  • পিয়াজ- ৪টা (মাঝারি আকারের)
  • রসুন- ২টা
  • আদা- ১/২ টেবিল চামচ
  • মরিচের গুঁড়ো – ১টেবিল চামচ
  • হলুদের গুড়ো- ১/২ টেবিল চামচ
  • ধনিয়া গুড়ো- ১/২ টেবিল চামচ
  • জিরা গুড়ো- ১/২ টেবিল চামচ
  • জায়ফল ও জয়েত্রী- পরিমানমত
  • এলাচ- ৮টি
  • লং- ৪টি
  • দারুচিনি- ৪টুকরা
  • সাদা সর্ষে বাটা- ১টেবিল চামচ
  • কাঁচা মরিচ- ৪টা
  • গোল মরিচ- ১/৪ টেবিল চামচ
  • তেজপাতা- ৪টা
  • রাধুনি মশলা – ১/২ টেবিল চামচ
  • দই – পরিমানমত
  • টমেটো সস- ২টেবিল চামচ

মেজবানি মাংস রান্নার প্রক্রিয়াঃ

১.প্রথমে,গরুর মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন।

২.পরিমান মতো গরম তেলে পিয়াজ কুঁচি লাল করে ভেজে নিন।

৩. এবার, একে একে তেজপাতা, আদা-রসুন বাটা, জায়ফল-জয়েত্রি বাটা, জিরা-ধনিয়া-হলুদ-মরিচ এর গুড়া, লং, এলাচি, দারুচিনি এবং সাথে পরিমানমতো পানি ও লবন দিয়ে ১০মিনিট নাড়তে থাকুন।

৪. এখন,গরুর মাংস দিয়ে দিন। সাথে স্বাদের জন্য পরিমানমত দই দিয়ে নাড়ুন।

৫. চুলা মাঝারি আঁচে রেখে ঢাকনা দিয়ে ৩০মিনিট রাখুন।

৬. নামানোর পুর্বে কাঁচামরিচ, গোলমরিচ এবং টমেটো সস দিয়ে ভালমত মিশিয়ে নিন।

এবার, সালাদ দিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার মেজবানী মাংস।

মেজবানি মাংসের স্বাদ আরও জমজমাট করুন সিদ্ধ চালের ভাত দিয়ে।

কি?! জিহ্বে জল চলে আসল ভেবে, তাইনা?

তবে, আজই চেষ্টা করুন এবং পরিবারের সাথে উপভোগ করুন মজাদার মেজবানি মাংসের রেসিপিটি।

পরবর্তী রেসিপিতে চোখ রাখতে ভুলবেন নাহ্ কিন্তু।

প্রিয় পাঠক-পাঠিকা, আপনার জানা কোনো খাবার রেসিপি আছে? আপনার রেসিপি প্রকাশ করতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন!

For more update please follow our Facebook, Twitter, Instagram , Linkedin , Pinterest , Tumblr And Youtube channel.

Leave a Comment

error: Content is protected !!