চোখ : চোখের যত্নে করণীয় ও টিপস

চোখের যত্নে আপনার করণীয় ও চোখ ভালো রাখার উপায় ও টিপস জানতে স্মার্টনেসের ৮ম ধাপ চোখের যত্নে আর্টিকেলটি পড়ুন। কিভাবে চোখ ভালো রাখা যায় আর্টিকেলের লেখক চৌধুরী দীন ইসলাম তার সুন্দর লেখনির দ্বারা আপনাদের সামনে তুলে ধরেছেন। তাহলে চলুন লেখাটি পড়া শুরু করা যাক….

চোখের যত্নে করণীয়

চোখের যত্নেরাত জাগা, অনিয়ম দুশ্চিন্তায় চোখের নিচে যেমন কালি পড়ে তেমনি আবার খাওয়া—দাওয়া আর নানা অনিয়মে চোখের চারপাশে কালচে ভাব ফুটে ওঠে। এই ধরণের সমস্যা মোকাবেলায় প্রয়োজন জীবন যাপনে নিয়ন্ত্রণ আর বেশ কিছু নিয়ম ফলো করা।

যেমন আপনার চোখকে আরাম দিতে প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে চোখে ঠান্ডা পানির ঝাপটা দিন। পাশাপাশি চোখের পেশিকে আরাম দিতে ক্লকওয়াইজ ও এন্টি ক্লকওয়াইজ চোখের মণি ঘুরিয়ে চোখের ব্যায়াম করুণ।

আবার চোখের যত্নে খানিকটা ভেষজ আরাম দিতে মাঝে মাঝে গোলাপ পানিতে চোখ ধোয়ার অভ্যাস করুণ। যারা বেশি মানসিক পরিশ্রম করেন, অনিয়মের মধ্যে দিয়ে দিন কাটান, অনিদ্রা কিংবা রক্ত স্বল্পতায় ভোগেন তারাই চোখের নিচে কালি বা চোখের চারধারে বলিরেখা এই সমস্যায় আক্রান্ত হন। এই সমস্যার হাত থেকে রেহাই পেতে—

* আলু কিংবা শসার টুকরা চোখের উপর দিয়ে ১০ মিনিট চোখ বন্ধ করে বিশ্রাম নিন। ক্লান্তি কাটবে। চোখের তলায় কালি থাকলে দূর হবে।

* বিশেষজ্ঞের মতামত নিয়ে আন্ডার আই ক্রিম ব্যবহার করুণ।

* যখন—তখন চোখে হাত দিবেন না ও অযথা চোখ ঘষবেন না। ময়লা থেকে ইনফেকশন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ঘষাঘষিতে চোখের নরম ত্বকে বলিরেখা পড়ে।

* মুলতানি মাটি ও ফোঁটা লেবুর রস দইয়ের সাথে মিশিয়ে চোখের নিচে লাগালে উপকার পাবেন।

* তুলসি পাতা বাটা ও চন্দন বাটা তে গোলাপ দিয়ে মিশিয়ে চোখে লাগান।

* ঠান্ডা টি—ব্যাগ চোখের পক্ষে আরামদায়ক।

* ভিটামিন এ এবং ডি—যুক্ত  খাবার খাওয়া প্রয়োজন। গাজর, বিট, পেঁপে ইত্যাদি পুষ্টিকর শাক—সবজি ও ফল খাওয়ার অভ্যাস করতে হবে।

* আধাঘন্টা নিয়মিত স্কিপিং, জগিং, সাঁতার, হাঁটা, দৌড়ানো যেকোনো ধরনের ব্যায়াম করা খুবই ভালো।

চোখ ভালো রাখার কিছু সাধারণ উপায়! 

আপনার চোখ ভালো রাখতে নিচের উপায় গুলো অনুসরণ করতে পারেন…

০১. টিভি দেখাঃ টিভি দেখার সময় কিছু সতর্কতা অবলম্বন করুন। একেবারে অন্ধকার রুমে টিভি দেখা উচিৎ নয়। এটি আপনার চোখের ক্ষতি করে। তাই টিভি দেখার সময় অবশ্যই রুমে ভিতরে ৪০/৬০ ওয়াটের লাইট জ্বালিয়ে নিন। ৬-১০ ফুট দূর থেকে টিভি দেখুন। অবশ্যই খেয়াল রাখুন, এটি যেন ৬ ফুটের কম না হয়। একটানা দীর্ঘক্ষণ টিভি দেখা উচিৎ নয়। মাঝে মাঝে দর্শন বিরতি দিয়ে টিভি দেখুন এবং ঝিরঝির, কাপাকাপি করা ছবি ও ভৌতিক ছায়াযুক্ত ছবি না দেখাই চোখের জন্য ভালো হয়।

০২. কমমেটিক্স ব্যবহার: চোখের জন্য কসমেটিক্স ব্যবহার ক্ষতিকারক। অতিরিক্ত কসমেটিক্স ব্যবহারে চোখে অ্যালার্জিক কনজাংটিভাইটিস, ব্লেফারাইটিস, স্টাই হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। চুলে খুশকি হলে মাথায় খুশকি মুক্ত শ্যাম্পু ব্যবহার করে আপনার মাথা খুশকি মুক্ত করুন, নয়তো মাথার খুশকি থেকে চোখ আক্রান্ত হতে পারে ও ব্লেফারাইটিস দেখা দিতে পারে। 

০৩. দূষিত পরিবেশ: প্রতিদিন বাহিরের কাজের শেষে পরিস্কার ঠাণ্ডা পানি দিয়ে চোখ পরিস্কার করে নিতে হবে। রোদে গেলে সানগ্লাস পড়ে নিন। সানগ্লাস সূর্যের অতিবেগুনী রশ্মী থেকে আপনার চোখকে রক্ষা করে। 

০৪. চোখে কিছু পড়লে: হঠাৎ আপনার চোখে ধুলিকণা, কীটপতঙ্গ, ক্ষুদ্র কাঠ, ইট বা পাথরের টুকরো পড়তে পারে। যার কারনে প্রথমে চোখে খচখচে, চোখ দিয়ে অবিরত পানি পড়াসহ চোখে জ্বালা করে ও চোখ লাল হয়ে যায়। এই ময়লা দ্রুত বের করা না হলে কর্নিয়ায় ঘষা লেগে চোখের প্রভৃতি ক্ষতি করতে পারে। এমন কি চোখ এক পর্যায়ে নষ্ট হয়ে যেতে পারে অস্বাভাবিক কিছু নয়। চোখে এমন অনুভূতি হলে সবাই (বিশেষকরে বাচ্চারা) চোখ বারে বারে কচলাতে থাকে যা একেবারেই করা ঠিক নয়। হঠাৎ চোখে এমন সহজ কিছু পড়ে থাকলে কটন বাডস (cotton buds) বা তুলোর সাহায্যে আলতো বের করে আনার চেষ্টা করুন। 

লেখকঃ চৌধুরী দীন ইসলাম

ডিয়ার রিডারস, চোখের যত্নে করণীয় আর্টিকেলটি পড়ে যদি আপনার ভালো লেগে থাকে তাহলে অবশ্যই লেখককে ধন্যবাদ জানাতে দ্বিধাবোধ করবেন না। আপনাদের সুন্দর মতামত এবং উৎসাহ লেখক/লেখিকাদেরকে আরও সুন্দর ও ভালো লেখনির উৎসাহ দেয়। (সৈয়দ রুবেল) – আমার বাংলা পোস্ট.কম

For more update please follow our Facebook, Twitter, Instagram , Linkedin , Pinterest , Tumblr And Youtube channel.

Leave a Comment

error: Content is protected !!